নারীদের নিয়ে উদ্ভাবনী হ্যাকাথন

দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও অন্যান্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ৫২৩ জন নারীর অংশগ্রহণের মধ্যে দিয়ে প্রথমবারের মতো আয়োজিত দুই দিনব্যাপী ‘ন্যাশনাল হ্যাকাথন ফর উইমেন-২০১৭’ গত শনিবার বিকেলে শেষ হয়েছে। এতে অংশগ্রহণকারীরা দেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের নয়টি সমস্যা সমাধানে ধারণা নিয়ে কাজ করেছেন।

এর মধ্যে রয়েছে স্বাস্থ্য ও কল্যাণ, কৃষি ও পরিবেশ, ব্যবসা ও বাণিজ্য, দক্ষতা অর্জন ও শিক্ষা, সংস্কৃতি ও পর্যটন, গণমাধ্যম ও বিনোদন, নগরায়ণ, সুপরিকল্পিত বাসস্থান এবং অধীনতা ও ক্ষমতায়ন। প্রতিযোগিতা শেষে ২৭টি ধারণা পুরস্কার পেয়েছে। বিজয়ীরা পুরস্কার হিসেবে ৫০ হাজার টাকা করে পেয়েছেন। এ হ্যাকাথন আয়োজন করছে তথ্যপ্রযুক্তিতে নারীদের উদ্বুদ্ধ করতে কাজ করা সংগঠন উইমেন ইন ডিজিটাল।

স্বাস্থ্য ও কল্যাণ খাতে প্রথম হয়েছে অপটিমিস্ট, কৃষি ও পরিবেশ খাতে গ্রিনওয়ার্ল্ড, ব্যবসা ও বাণিজ্য খাতে সিইউ স্প্রিং, দক্ষতা অর্জন ও শিক্ষা খাতে জুবিয়েল গার্ল, সংস্কৃতি ও পর্যটন খাতে ট্রাসপেক্ট ০.২, গণমাধ্যম ও বিনোদনে ইনভিজিবল ফাইটারস, নগরায়ণ ও সুপরিকল্পিত বাসস্থান খাতে ক্রিস্টোন এবং ক্ষমতায়ন খাতে মিস্ট কার্ডিনাল প্রথম হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ বলেন, প্রকল্পগুলোকে ব্যবসায় রূপান্তর করতে সহযোগিতা করা হবে।

উইমেন ইন ডিজিটাল বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা আচিয়া নীলা বলেন, নারীদের সৃজনশীল প্রোগ্রামিং ও উদ্ভাবন দেশের উন্নয়নে নতুন মাত্রা যোগ করবে। ভবিষ্যতে তাঁদের অংশগ্রহণ আরও বাড়বে। এতে নারীর ক্ষমতায়ন বাড়বে। বিজ্ঞপ্তি।